পাহাড় ধস-গাছ চাপায় ৩ জনের মৃত্যু

কক্সবাজার: কক্সবাজারের মহেশখালীতে ভারী বৃষ্টিপাতে উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গাছ চাপায় এবং রামুতে পানিতে ডুবে ১ শিশুসহ মোট ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। ১২ জুন মহেশখালীর হোয়ানক ইউনিয়নের পানিরছড়া এলাকা এবং উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের তেলিপাড়া এলাকায় ও রামু গর্জনিয়া এ ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন মহেশখালী উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের পানিরছড়া এলাকার বাসিন্দা মো. বাদশা মিয়া (৩৫) এবং উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জামতলী এলাকার হোসেন আহমদের ছেলে মোহাম্মদ আলী (২০) ও রামু গর্জনিয়া এলাকার নুরুল হুদার ছেলে জুনাইদ (৩)।
মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গতকাল সকালে উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের পানিরছড়া এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাতের সময় বাড়ির শৌচাগারে ছিলেন স্থানীয় বাসিন্দা মো. বাদশা মিয়া। এসময় পাহাড় ধসে বাড়ির পেছনের অংশের উপর এসে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলে মাটি চাপা পড়ে বাদশা মিয়া মারা যান। নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানান ওসি।
এদিকে, ভারী বৃষ্টিপাত ও ঝড়ো হাওয়ায় উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জামতলী এলাকায় গাছ চাপায় মোহাম্মদ আলী নামের একজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানান উখিয়া থানার ওসি আবুল খায়ের।
রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নুরুল আলম জানান, বন্যার পানি বেড়ে যাওয়ায় নিরাপদ আশ্রয়ে যাচ্ছিলেন নুরুল হুদার পরিবার। এসময় তার তিন বছরের শিশু জুনাইদ বানের পানিতে ডুবে যায়। পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে গর্জনিয়া বাজারের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।

মতামত দিন